মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৭ নভেম্বর ২০১৮

মন্ত্রিপরিষদ সচিবের জীবনালেখ্য

 

 

 

 

                                                                      

মোহাম্মদ শফিউল আলম

মন্ত্রিপরিষদ সচিব

জন্মতারিখঃ সোমবার, ১৪ ডিসেম্বর ১৯৫৯।

মাননীয় মন্ত্রিপরিষদ সচিবের বিস্তারিত জীবনবৃত্তান্ত

 

          মোহাম্মদ শফিউল আলম ১৯৫৯ সালে কক্সবাজার জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় হতে ১৯৮১ সালে ইংরেজিতে এম. এ. ও ১৯৯০ সালে এল.এল.বি ডিগ্রি এবং পরবর্তীতে যুক্তরাজ্যের বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উন্নয়ন প্রশাসন বিষয়ে এম.এস.এস ডিগ্রি অর্জন করেন। 

 

          তিনি বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস ১৯৮২ নিয়মিত ব্যাচের একজন সদস্য এবং বিগত ৩৫ বছর ধরে মাঠ প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন পদসহ বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে যথা মাগুরা ও ময়মনসিংহ জেলার জেলাপ্রশাসক, বাংলাদেশ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের (BPATC) Member Directing Staff (MDS), জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের এবং বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান, রাজশাহীর বিভাগীয় কমিশনার, যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব, ভূমি আপীল বোর্ডের চেয়ারম্যান (সচিব) এবং  ভূমি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। বিগত ২৯.১০.২০১৫ তারিখ হতে তিনি মন্ত্রিপরিষদ সচিব হিসেবে কর্মরত আছেন।

 

          তিনি “প্রবেশন নির্দেশিকা”, “Gender and Development”, “Performance Appraisal, “Clustering of Ministries’’, “বিধি সহায়িকা-সরকারি চাকুরির বিধিমালা”, “ঠিকানা-বাংলাদেশের আইন, অধ্যাদেশ ও রেগুলেশন নির্দেশিকা” ইত্যাদি বইয়ের রচয়িতা।

 

          তিনি দেশে এবং বিদেশে অনেক প্রশিক্ষণে, সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন। তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইংল্যান্ড, ফিনল্যান্ড, ফ্রান্স, রাশিয়া, অষ্ট্রেলিয়া, ইন্দোনেশিয়া, মরক্কো, নিউজিল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড, সুইডেন, স্পেন, ইটালি, সংযুক্ত আরব আমিরাত, সৌদি আরব, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া,  মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, ফিলিপাইন, ভিয়েতনাম, কম্বোডিয়া, মায়ানমার, শ্রীলঙ্কা, ভূটান, পাকিস্তান, নেপাল,  কানাডা, জার্মানি, চীন, হংকং, কেনিয়া, গায়ানা, পানামা, তুরস্ক, কাতার, হাইতি ও ভারতসহ বিভিন্ন দেশ সফর করেন।

 

          তিনি একজন অভিজ্ঞ প্রশিক্ষক এবং ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গিসম্পন্ন জনকল্যাণমুখী সরকারি কর্মচারী। সেবাপ্রার্থীদের সার্বিক সেবা প্রদান করার মাধ্যমে এদেশের গরীব, দু:খী মানুষের মুখে হাসি ফোটানো-ই তাঁর কর্মজীবনের ব্রত। 

 

 

 

 

 


Share with :

Share with :

Facebook Facebook